blogsboard

#college-review #college-admission #gpa #ssc #hsc

13 Feb, 2022

কলেজ পরিচিতি: কুমিল্লা ইস্পাহানি পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ

প্রায় ৯.৩ একর জায়গা জুড়ে অবস্থিত কুমিল্লার অন্যতম একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। কলেজের মূল ভবনটি তিন তলা। যার অভ্যন্তরে রয়েছে গ্রন্থাগার, মসজিদ, সুবিশাল মিলনায়তন, শিক্ষকদের সমাবেশ কক্ষ, বিএনসিসি কক্ষ, অধ্যক্ষের অফিস, উপাধ্যক্ষের অফিস, একাউন্ট অফিস, বিভিন্ন বিষয়ের জন্য আলাদা গবেষণাগার এবং পর্যাপ্ত পরিমাণ শ্রেণী কক্ষ। কলেজের সামনে এবং পিছনে আছে বিশাল দুটি খেলার মাঠ রয়েছে।কলেজে ক্যাম্পাসের মধ্যেই আছে শিক্ষকদের আবাসিক বাসস্থান।

No photo description available.

EIIN : 105826

কলেজ চালু

কুমিল্লা সেনানিবাসের তৎকালীন ক্যান্টনমেন্ট এক্সিকিউটিভ অফিসার এর উদ্যোগে ১৯৭৫ শাহরিক ক্যান্টনমেন্ট মার্কেটে একটি শিল্প প্রদর্শনীর আয়োজন হয়। এই প্রদর্শনী থেকে আনুমানিক ২ লক্ষ টাকা আয় হয়। তৎকালীন ব্রিগেড কমান্ডারের পরামর্শে তিনি এই টাকা দিয়ে ক্যান্টনমেন্ট কলেজ নামে একটি স্বতন্ত্র কলেজ চালু করেন।

কিন্তু নানা প্রতিবন্ধকতা ফলে কলেজটির চালানো সম্ভব না হওয়ায় তিনি কলেজটিকে ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড হাই স্কুলের সাথে একত্রীকরণ করার ব্যাপারে বোর্ড ডিরেক্টরের সাথে আলোচনা করলে তিনি তা অসম্ভব বলে জানিয়ে দেন। ফলে আর কোনো উপায় না থাকায় প্রতিষ্ঠানটিকে ইস্পাহানী পাবলিক স্কুলের সাথে সংযুক্ত করা প্রয়োজনীয় হয়ে পড়ে।

এই বিষয়ে প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও সদস্যদের সাথে আলোচনার পর ১৯৭৫ সালের ২৮ অক্টোবরে ক্যান্টনমেন্ট কলেজ-কে ইস্পাহানী পাবলিক স্কুলের সাথে সংযুক্ত করে বিদ্যালয়ের নাম ইস্পাহানি পাবলিক স্কুল ও কলেজ রাখা হয়।

ভর্তি

এই বিদ্যালয়ে সাধারণত জানুয়ারিতে প্রথম, ষষ্ঠ ও নবম শ্রেণিতে বাংলা মাধ্যমে এবং জুলাই মাসে একাদশ শ্রেণিতে বাংলা ও ইংরেজি উভয় মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা হয়ে থাকে। পূর্বে ষষ্ঠ শ্রেনিতে ইংরেজি মাধ্যমে ছাত্র ছাত্রী ভর্তি করা হলেও ২০১৪ সালে মাধ্যমিকে ইংরেজি মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা বন্ধ হয়ে যায় এবং ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষার মাধ্যমে মাধ্যমিক শাখায় ইংরেজি মাধ্যম পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়। ভর্তিচ্ছুরা একটি প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হ‌ওয়ার মাধ্যমে ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করে। উচ্চমাধ্যমিক শ্রেনীতে এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করার পর ছাত্র ছাত্রী ভর্তি করা হয়ে থাকে।

 কুমিল্লা ইস্পাহানি পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ এ এডমিশন পেতে হলে কি কি করতে হবে  

যেকোনো পরীক্ষা ভাল করার জন্যেই খুব ভাল করে SSC সিলেবাস টা শেষ করতে হবে। এজন্য সেরা mentor দের নিয়ে সহপাঠী নিয়ে এলো Road to NDC and HCC course

যেকোনো সমস্যা সমাধান এ পছন্দের mentor এর কাছে  ১-১ পড়ার সুযোগ ও রয়েছে।

মোট আসন সংখ্যাঃ ৮৩০

আবেদন যোগ্যতা

বিজ্ঞান বিভাগ (বাংলা ভার্ষন) : জিপিএ ৫.০০            কলেজ বুক লিস্ট সাজেশনঃ বিজ্ঞান বিভাগ

বিজ্ঞান বিভাগ (ইংরেজি ভার্ষন) : জিপিএ ৫.০০

ব্যবসায় শিক্ষা : জিপিএ ৪.০০

মানবিক : জিপিএ ৩.৭৫                                         কলেজ বুক লিস্টঃ মানবিক বিভাগ

যাতায়াত সুবিধা

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসাবে দেওয়া একটি বাস এবং কলেজের নিজস্ব অর্থায়নে ক্রয়কৃত একটি বাস বর্তমানে ছাত্রদের আনা নেওয়ার কাজে ব্যবহৃত হয়।বর্তমানে আরো ৮টি বাস রয়েছে।

গ্রন্থাগার

কলেজের মূল ভবনের দোতালায় গ্রন্থাগার অবস্থিত। ছাত্ররা গ্রন্থাগার থেকে বই বাসায় নিয়ে যেতে পারে। গ্রন্থাগারের কক্ষে বসে ছাত্ররা পড়াশোনা করতে পারে। একজন গ্রন্থাগারিক ও একজন সহকারী গ্রন্থাগারিক ছাত্রদের প্রয়োজনীয় বই খুঁজে দিতে সাহায্য করে থাকেন।

প্রকাশনা

প্রতিষ্ঠানটি প্রতি বছরেই শৈলাচল নামের একটি স্কুল ম্যাগাজিন প্রকাশ করে। প্রতিষ্ঠানের সাবেক উপাধ্যক্ষ জনাব মাখন চন্দ্র বড়াল উক্ত নামকরণ করেন।

কলেজ ভর্তি সংক্রান্ত তথ্য ও সাহায্যের জন্য জয়েন করো এই গ্রুপে:

COLLEGE ADMISSION 2021 HELPLINE By Sohopathi

#SSC_2021

#college

#sohopathi

#সহপাঠী


যেকোনো একাডেমিক সমস্যায় আমাদের মেন্টরদের সহযোগিতা  নিতে রেজিস্ট্রেশন করো এই লিংকে:https://www.sohopathi.io/mentors 

সহপাঠী

Get Free Live Classes and Tests on the Sohopathi App